বাংলা স্টোরি ফেসবুক পেইজ কখনোই সেল করা হবে না। কোথাও কোনো এড দেখে পেইজ কিনতে গিয়ে স্ক্যামের স্বীকার হলে বাংলা স্টোরি কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

যেকোনো প্রয়োজনে হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ দিন - +8801947368211

জার্মানিতে স্টুডেন্ট ভিসা আবেদন করবেন যেভাবে

ja

যদি আপনি একজন স্টুডেন্ট হিসাবে জার্মানিতে আসতে চান তবে আপনাকে জার্মানি স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। স্টুডেন্ট ভিসায় আসার জন্য বা আবেদন করার জন্য আপনার যা যা প্রয়োজন আমরা বিস্তারিত এই পোস্টে তুলে ধরবো!

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় জার্মানিতে পড়ালেখা করা খুবই সহজলভ্য, জার্মানিতে অনেক বিশ্ববিদ্যালয় আছে যেখানে আপনি টিউশন ফি ছাড়াই পড়ালেখা করতে পারবেন এবং সেইসাথে সিজিপিএ ২.১ এবং ২.২ পাওয়া ছাত্ররাও জার্মানির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে ভর্তি হবার সুযোগ পায়। অল্প টাকায় টিউশন ফি, অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পাওয়ার সুযোগ এবং সাথে পার্ট-টাইম কাজের সুযোগ থাকায় বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শিক্ষার্থীরা জার্মানিতে পড়াশোনার জন্য আসছেন। সব মিলিয়ে অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে জার্মানিতে স্টুডেন্ট ভিসায় আসা ছাত্রদের জন্য।

জার্মানি স্টুডেন্ট ভিসা হচ্ছে একটি দীর্ঘ মেয়াদি ভিসা, নিম্নে ভিসা আবেদন করতে কাগজপত্র সহ কি কি প্রসেস অনুসরণ করতে হয় তা নিয়ে আলোচনা করবো।

জার্মানি স্টুডেন্ট ভিসার জন্য যা যা প্রয়োজন।

১) জার্মানিতে ব্যাচেলর করতে হলে, আপনার সর্বনিম্ন HSC পাশ থাকতে হবে।

২) জার্মানিতে মাষ্টার্স করতে হলে আপনাকে অন্তত অনার্স পাশ হতে হবে।

৩) জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অফার লেটার থাকতে হবে।

৪) আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা, আপনার সকল সার্টিফিকেট প্রদান করতে হবে।

৫) আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখাতে হবে৷ যেটা ২০২৩ সালের হিসাব অনুযায়ী প্রতি বছরের জন্য প্রায় ১১ হাজার ২০০ ইউরোর কাছাকাছি, আর যদি স্কলারশিপ পেয়ে থাকেন সে ক্ষেত্রে এটা আরও কম হতে পারে।

৬) স্টেটমেন্ট এর জন্য জার্মানিতে একটি ব্লক একাউন্ট খুলতে হবে।

৭) আপনাকে জার্মান এম্বাসিতে জার্মান ভাষার উপর পরীক্ষা দেওয়া লাগতে পারে।

৮) আপনাকে ভিসা আবেদন ফি প্রদান করতে হবে।

৯) ট্রাভেল হেলথ ইন্সুইরেন্স লাগবে।

জার্মানিতে যেতে যেসব দেশের স্টুডেন্টসদের কোনো ভিসা লাগবে না।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং EFTA এর ( আইসল্যান্ড, লিচেনস্টাইন, নরওয়ে বা সুইজারল্যান্ড ) এসব দেশের নাগরিকদের ভিসা লাগবে না।

আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, ইসরায়েল, জাপান, কানাডা, দক্ষিণ কোরিয়া, নিউজিল্যান্ড, যুক্তরাজ্য এবং উত্তর আয়ারল্যান্ড নাগরিকরাও ভিসা ছাড়া জার্মানি প্রবেশ করতে পারবে। এই সকল দেশ ছাড়া বাকি সকল দেশের নাগরিকদের ভিসা আবেদন করে জার্মান এম্বাসির মাধ্যমে জার্মান প্রবেশ করতে হবে। আপনি জার্মানিতে যদি লম্বা সময় ধরে থাকতে চান, তাহলে আপনাকে দীর্ঘমেয়াদি (D Visa) ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে।

কিভাবে স্টুডেন্ট ভিসা আবেদন করবেন?
আবেদন প্রকৃিয়া খুবই সহজ

১) প্রথমে আপনাকে সকল ডকুমেন্টস প্রস্তুত করতে হবে।
২) আপনাকে আপনার দেশের জার্মান এম্বাসিতে যেতে হবে সকল ডকুমেন, এর পর ডকুমেন্টস গুলো ওখানে সাবমিট করতে হবে।

৩) অন্তত তিনমাস আগে আবেদন প্রকৃিয়া শেষ করতে হবে।

ভিসার খরচ
জার্মানি স্টুডেন্ট ভিসা ফি হচ্ছে ৭৫ ইউরো।

জার্মানিতে যাওয়ার পর রেসিডেন্স এর জন্য আবেদন করতে পারেন।

জার্মানিতে রেসিডেন্সি পাওয়ার জন্য আপনাকে অফিসে আবেদন করতে হবে, এর জন্য আপনাকে জার্মানের নাগরিকদের সাহায্য নিতে হবে।

জার্মানিতে লেখাপড়া শেষ করার পর থাকতে পারবেন যেভাবে?

আপনার পড়ালেখা শেষ করার পরে জার্মানিতে থাকার জন্য আপনার কাছে বেশ কয়েকটি উপায় থাকবে। আপনি চাকরির চেষ্টা করছে সেই ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন, অথবা আপনি যদি কোনো চাকরির অফার পেয়ে থাকেন তবে আপনি জার্মান এমপ্লয়মেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন।

শেষ কথা

উপরে উল্লেখ করা হয়েছে জার্মানি ভিসার সম্পূর্ণ প্রসেসিং। আপনি যদি একজন স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন আশা করি উপরের আর্টিকেলটি আপনার জন্য উপকারে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *